ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে শিশু হত্যার দায়ে মা আটক জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ অটোরিক্সা বন্ধে ট্রাফিক পুলিশের প্রচারণা মা ইলিশ রক্ষায় জেলেদের মধ্যে চাল বিতরণ ওসি ইকবাল হোসেনের বিদায় সংবর্ধনা স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েও স্বপদে বহাল শরীর চর্চা শিক্ষক প্রশাসনের কাজে খুশি হয়ে শ্রমিকদের আনন্দ মিছিল সাদা ছড়ি ব্যবহার করি, নিশ্চিন্তে পথ চলি লক্ষ্মীপুরে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত দোয়া দিবস পালিত ডেঙ্গু কেড়ে নিলো ব্যবসায়ীর প্রাণ ২০২৩ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে পারে বাংলাদেশ! সম্রাটের ১০ দিনের রিমান্ড আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের বিশ্বে ৭০ কোটি শিশু পুষ্টিহীনতায় ভুগছে ইরান ও সৌদিকে সরাসরি আলোচনায় বসার প্রস্তাব ইমরান খানের নতুন প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ার আহ্বান ঢাকায় হচ্ছে আরো দুই মেট্রোরেল দুই মাসেও সন্ধান মেলেনি স্বজনদের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার,আটক ৬ চর লরেঞ্জ ইউপি সদস্য নির্বাচনে ইসমাইল হোসেনের জয়

বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

৭১৯

অনৈতিক কাজে লিপ্ত যুবক-যুবতী আটক

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০১৯  

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বিয়ের প্রলোভনে যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ২নং উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চরকাছিয়া গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের কাজী বাড়ির আলী হোসেন কাজীর পুত্র সুজনের সঙ্গে একই বাড়ির যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের জের ধরে মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মাস খানেক শারীরিক মেলামেশা করে সুজন। মঙ্গলবার রাতে তারা দু’জনে ফের অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়ে।

এক পর্যায়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগসাজশে মাইনুদ্দীন কাজী ও স্বপন মেম্বার বিষয়টি ধামাচাপা দেয়। 

যুবতীর মা বলেন, আমাদের অগোচরে মেয়েটিকে বিয়ে করবে বলে বিভিন্ন শপথ করে এবং ভয় ভীতি দেখিয়ে সুজন তার সঙ্গে শারীরিক মেলামেশা করতে বাধ্য করে। আমি বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি সদস্য স্বপন কাজী ও মাইনুদ্দীন কাজীকে জানাই।

তারা বিষয়টি সমাধান করে দেবে বলে আমাদের আশ্বস্ত করলেও আমরা এখনো কোনো সমাধান না পাওয়ায় মেয়েটিকে নিয়ে চিন্তিত। আমাদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে হুমকি-ধমকি দিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। প্রশাসনের কাছে যেতে চাইলেও তারা আমাদেরকে সমাধান করে দেবে বলে যেতে দেয়নি।

ইউপি সদস্য স্বপন কাজী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি আমাদের বাড়ির। আমরা পারিবারিকভাবে সমাধান করবো।

ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার আবুল হোসেন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হাজিমারা ফাঁড়ি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ মুঠোফোনে বলেন, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//