ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো লক্ষ্মীপুরে লকডাউন অবস্থায় অসুস্থ যুবকের মৃত্যু : নমুনা সংগ্রহ
  • শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

৮১

অপহরণ করে লঞ্চযোগে ঢাকা নেয়ার পথে ধর্ষণ

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

ফরিদগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে লঞ্চযোগে ঢাকা নেয়ার পথে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শুধু তাই নয়, তাকে ধর্ষণের পর বাড়িতে ফিরিয়ে দেয়া হয়। ঘটনা সামনে আরো লোমহর্ষক। তা হচ্ছে_স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ লোকজন সালিসের কথা বলে ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ৫টি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর উল্টো তাকে দোষী বলে বেত্রাঘাত করা হয়। এমন ঘৃণিত ও জঘন্য ঘটনার ৬ দিন পর থানায় মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রীর মা। পরে তার ডাক্তারী পরীক্ষার পর আদালতে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে ধর্ষিতা।

থানায় দায়েরকৃত মামলা ও আদালতে দেয়া জবানবন্দি অনুযায়ী জানা গেছে, বালিথুবার আব্দুল হামিদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর (১৪) সাথে একই এলাকার থাই অ্যালুমুনিয়ামের মিস্ত্রী ফারুক উকিলের (২৪)- সম্পর্ক ছিলো। গত ৩০ অক্টোবর সে স্কুুলে যাওয়ার জন্যে বাড়ি থেকে বের হলে ফারুক সিএনজি স্কুটার নিয়ে পথে দাঁড়ায়। ফারুক তাকে চাঁদপুরে যাওয়ার জন্যে বললে সে রাজী হয়নি। পরে তাকে জোরপূর্বক গাড়িতে উঠিয়ে লঞ্চযোগে ঢাকা নিয়ে যায়। ঢাকা যাওয়ার পথে লঞ্চের কেবিনে ওই স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক দু'বার ধর্ষণ করে ফারুক। পরে ঢাকায় গিয়ে পুনরায় আরেকটি লঞ্চযোগে তাকে নিয়ে চাঁদপুর আসে ফারুক। এদিকে এলাকায় আসার পর স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজন বিয়ে পড়িয়ে দেয়া ও সালিসের মাধ্যমে সুরাহার কথা বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য হারিছ মেম্বার, মহসীন তপাদারসহ লোকজন ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ৫টি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর রাখে। একই সাথে হারিছ মেম্বারের নির্দেশে ছাত্রীটিকে বেত্রাঘাত করা হয় বলে মামলার বাদী ধর্ষিতার মা জানান।

এদিকে ঘটনার ৬দিন পর গত ৪ নভেম্বর ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ধর্ষক ফারুক উকিলকে প্রধান আসামী করে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ ঘটনাটি আমলে নিয়ে মামলা হিসেবে গ্রহণ করে পরদিন ৫ নভেম্বর ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে প্রেরণ করে। এছাড়া চাঁদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হাসান জামানের আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে ধর্ষিতা ওই স্কুলছাত্রী।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এইচএম হারুন জানান, স্থানীয় ইউপি সদস্য তাকে ফোনে ছেলে-মেয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনার কথা জানায়। তখন আমি তাকে বলেছি, যদি পুলিশি বিষয় হয় তাহলে পুলিশকে খবর দিতে। আর যদি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার বিষয় হয় তাহলে সাদা কাগজে উভয়ের অভিভাবকের স্বাক্ষর রেখে তাদের জিম্মায় ছেলে-মেয়েকে হস্তান্তর করে পরবর্তীতে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বৈঠকের আয়োজনের জন্যে। কিন্তু ধর্ষণসহ অন্য বিষয়ে আমি কিছুই জানি না।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদগঞ্জ থানার এসআই নাজমুল হোসেন বুধবার দুপুরে জানান, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা ও ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি সম্পন্ন হয়েছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব জানান, ধর্ষণের ঘটনায় সালিসের কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু সালিসের নামে কালক্ষেপণ, স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায় ও বেত্রাঘাতের মতো ঘটনা ঘটিয়েছে। যা গুরুতর এবং জঘন্য অপরাধ। মামলার তদন্ত চলছে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//