ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে শিশু হত্যার দায়ে মা আটক জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ অটোরিক্সা বন্ধে ট্রাফিক পুলিশের প্রচারণা মা ইলিশ রক্ষায় জেলেদের মধ্যে চাল বিতরণ ওসি ইকবাল হোসেনের বিদায় সংবর্ধনা স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েও স্বপদে বহাল শরীর চর্চা শিক্ষক প্রশাসনের কাজে খুশি হয়ে শ্রমিকদের আনন্দ মিছিল সাদা ছড়ি ব্যবহার করি, নিশ্চিন্তে পথ চলি লক্ষ্মীপুরে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত দোয়া দিবস পালিত ডেঙ্গু কেড়ে নিলো ব্যবসায়ীর প্রাণ ২০২৩ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে পারে বাংলাদেশ! সম্রাটের ১০ দিনের রিমান্ড আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের বিশ্বে ৭০ কোটি শিশু পুষ্টিহীনতায় ভুগছে ইরান ও সৌদিকে সরাসরি আলোচনায় বসার প্রস্তাব ইমরান খানের নতুন প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ার আহ্বান ঢাকায় হচ্ছে আরো দুই মেট্রোরেল দুই মাসেও সন্ধান মেলেনি স্বজনদের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার,আটক ৬ চর লরেঞ্জ ইউপি সদস্য নির্বাচনে ইসমাইল হোসেনের জয়

বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

৪৬

আবরার হত্যাকাণ্ডে কঠোর অবস্থানে সরকার

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের আটকে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। অন্যায় ও অপরাধের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির ভিত্তিতে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া পলাতকদের ধরতে তৎপরতা শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত আটক ৮ জনের মধ্যে ৪ জনের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আটককৃতরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক ও নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে হলে ছাত্র রাজনীতির অন্তরালে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা, জোরপূর্বক সাধারণ ছাত্রদের ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়ানো, হলে মাদক সেবন এমনকি বুয়েট ক্যাম্পাসের আশেপাশের ফুটপাতে চাঁদাবাজিরও অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। ছাত্রলীগের নামধারী এসব অতিউৎসাহী ও বিশৃঙ্খল ছাত্র নেতাদের অত্যাচারে শেরে বাংলা হলের সাধারণ শিক্ষার্থীরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলেন বলেও জানা গেছে।

তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিতে রাজনৈতিক প্রভাব মুক্ত থেকে কাজ করছে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। আবরার হত্যায় আসামিরা যে দল-মতের হোক না কেন, হত্যাকাণ্ডের মতো গুরুতর অপরাধে জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করবে প্রশাসন।

এদিকে বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি এই ঘটনা শুনেছি। এটা আমি জানি। একটু আগেও পুলিশের আইজির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমি যতটুকু বুঝি, এখানে ভিন্নমতের জন্য একজন মানুষকে মেরে ফেলার অধিকার কারো নেই। কাজেই এখানে আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। তদন্ত চলছে, তদন্তে যারাই অপরাধী বলে সাব্যস্ত হবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে পার্সোনালি আমি বলেছি। আমার কোনো দ্বিমত নেই। অপরাধী যে-ই হোক, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অপরাধীদের কোনো স্থান নেই।

অন্যদিকে, আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। কমিটিকে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ তদন্তের প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি বুয়েটে শিক্ষার্থী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ছাত্রলীগ।

এছাড়া বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি জড়িতদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)। সোমবার (৭ অক্টোবর) ডাকসু’র সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) সাদ্দাম হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই আহ্বান জানানো হয়েছে।ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায় বলেন, প্রাথমিক তদন্তে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রমাণ পেয়েছি। সিসিটিভির ফুটেজ আছে সবগুলো সংগ্রহ করেছি। ফুটেজগুলো অত্যন্ত স্বচ্ছ। এই হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কে কোন দলের এসব বিবেচনায় আসবে না।

উল্লেখ্য, সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোরে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের নিচতলার সিঁড়ির উপর থেকে আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ফাহাদ বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। বুয়েটে লেখাপড়াকালীন সময়ে ছাত্রশিবিরের রাজনীতির সাথে তার সম্পৃক্ততার বিষয়টিও এসেছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//