ব্রেকিং:
চীন থেকেই চালু হয় হারেমে একাধিক রক্ষিতা রাখার প্রথা! ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীকে কীটনাশক খাইয়ে হত্যার চেষ্টা অনলাইনে পরীক্ষা ও ভর্তি বন্ধে ইউজিসি’র আহ্বান করোনা ঠেকাতে স্বেচ্ছায় লকডাউনে তিনগ্রাম স্বাস্থসেবীদের জন্য সিএমপি`র ফ্রি বাস সার্ভিস দেশের জন্য আগামী ৩০ দিন আরো ঝুঁকিপূর্ণ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওষুধের দোকান ছাড়া সন্ধ্যার পর সব বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনায় আর্থিক সহায়তা পাচ্ছে জার্মানরা কমলনগরে সূর্যের হাসি ক্লিনিকটি বন্ধ গত ১০ দিন করোনা সংকট: দুর্নীতির শঙ্কায় বিএনপিকে না বললেন ড. ইউনূস করোনা আতঙ্কে বন্দুক কিনছে মার্কিনিরা ৯ মিনিটের জন্য অন্ধকারে ভারত এসএসসির ফল চলে যাবে অভিভাবকদের মোবাইলে রাসূলকে (সা.) স্বপ্নে দেখার আমল খাবার নিয়ে অসহায় মানুষের সৌরভ গাঙ্গুলি ভূমিকম্পের মাধ্যমে ধ্বংস হয়েছিল ‘পবিত্র নগরী’! লকডাউন আইসোলেশন কোয়ারেন্টাইন : ইসলাম যা বলে ছু‌টি বাড়লো ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে আরও বেশি মানুষ মারা যাবে, বললেন ট্রাম্প দেশে আরো ১৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত, মোট ৮৮
  • মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৩ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

৪৭

কোয়ারেন্টান কীভাবে ঠেকায় করোনাভাইরাস?

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২০  

করোনা আতঙ্ক ঘুম কেড়ে নিয়েছে বিশ্ববাসীর। দিন দিন বাড়ছে আক্রান্ত সংখ্যা। সেইসঙ্গে ভারী হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। এ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনায় প্রায় ১৯ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখেরও বেশি। বিশেষজ্ঞরা এ ভাইরাস প্রতিরোধে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। এড়িয়ে চলতে বলছেন জনসমাগম। তবে অনেকেই মানছেন না এসব। 

জানেন কি? সেলফ কোয়ারেন্টাইন বা ঘরে থেকেই প্রতিরোধ করতে পারেন প্রাণঘাতী করোনা। করোনা অনেকটা ছোঁয়াচে রোগের মতোই। এটি আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির মাধ্যমে অন্যের শরীরে প্রবেশ করে। এছাড়াও তার ব্যবহৃত জিনিস ছুলেও আক্রান্ত হতে পারেন এ ভাইরাসে। তাই করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মতো কোয়ারেন্টাইনে থাকুন। এরই মধ্যে যদি আপনি আক্রান্ত হয়ে থাকেন তবে অন্যদের বাঁচাতে সেলফ কোয়ারেন্টাইন মেনে চলুন।     

সেলফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার সময় কী কী করবেন?   

>আপনি যদি কোভিড-১৯ দ্বারা আক্রান্ত হন এবং পরিবারের সঙ্গে থাকেন তবে পরিবারের সদস্যদের থেকে দূরে থাকুন। নিজেকে একটি আলাদা রুমে গৃহবন্দী রাখুন এবং আলাদা বাথরুম ব্যবহার করুন।  


>বাড়ির পোষ্যকে স্পর্শ করবেন না এবং তার কাছে যাবেন না।   

>ডাক্তার ছাড়া নিজের বাড়িতে এবং গৃহবন্দী থাকা ঘরে কাউকে প্রবেশ করতে দেবেন না। 

>আপনার ব্যবহার্য সমস্ত জিনিস যেমন- তোয়ালে, কাপ, বিছানার জিনিসপত্র আপনার ঘরেই রাখুন। রুমের বাইরে রাখবেন না এবং বাড়ির কাউকে ব্যবহার করতে দেবেন না।    

>হাঁচি-কাশি দেয়ার সময় আপনার নাক ও মুখ টিস্যু দিয়ে ঢেকে নিন। এরপর টিস্যুটি সঠিকভাবে নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলুন বা ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিন ব্যবহার করুন। 

>হাত পরিষ্কার রাখতে সবসময় অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার বা সাবান পানি ব্যবহার করুন। 

>গৃহবন্দী থাকার সময় শারীরিক কোনো সমস্যা দেখা দিলে ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

>ওমেগা-৩ যুক্ত খাবার নিজের ঘরে স্টক রাখুন এবং সেগুলো বেশি করে খান। 

>নিজের ঘরটিকে জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করুন। কনটেনার, টেবিল, দরজার লক, বাথরুমের ব্যবহার্য জিনিসপত্র, ফোন, ল্যাপটপ ইত্যাদি পরিষ্কার রাখুন। 

>আপনার অসুস্থতার লক্ষণগুলো ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করুন।    

>ঘরে যাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে আলো-বাতাস চলাচল করতে পারে, সেদিকে খেয়াল রাখুন।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন থাকুন। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের দেয়া পরামর্শ মেনে চলুন। 

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
করোনাভাইরাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//