ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো লক্ষ্মীপুরে লকডাউন অবস্থায় অসুস্থ যুবকের মৃত্যু : নমুনা সংগ্রহ
  • শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪১

৬৮

টিকটকে ভিডিও দেয়ায় স্ত্রীকে খুন করলো স্বামী

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০১৯  

নির্দেশ অমান্য করে টিকটক ভিডিও টিকটক অ্যাপসে প্রকাশ করায় স্ত্রীকে হত্যা করলো স্বামী। চলতি মাসের ১৭ তারিখে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে গুনটুর জেলায় এ ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশের দেয়া তথ্য মতে, চলতি মাসের ১৭ তারিখ স্থানীয় সময় রাতে সিডাল চিন্না নসরাইয়া তার স্ত্রী গোরপতি সুর্বথাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর তাকে গ্রামের শ্মশানে নিয়ে তার দেহ পুড়িয়ে ফেলে। আর এ কাজে তাকে সহযোগিতা করে চিন্নার ভাই ভেনিকিয়াহ।

জানা গেছে, ওই দম্পতি একটি বেসরকারি কোম্পানিতে সেলসম্যান হিসেবে কাজ করত। পাঁচ বছর আগে তাদের বিয়ে হয় ও তাদের ঘরে দুই বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। টিকটকে ভিডিও বানানোর অভ্যাস ছিল সুবার্থার কিন্তু তার স্বামী তা পছন্দ করতেন না। যার ফলে দুইজনের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত।

পুলিশ জানিয়েছে, বনিবনা না হওয়ায় সুবার্থ তার মেয়েকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে নিজের বাবা-মায়ের কাছে চলে যায় সুবার্থ।  এরপর মেয়েকে সেখানে রেখে নিজে একটি হোস্টেলে থাকতেন। স্বামীকে আরো রাগান্বিত করতে টিকটকের ভিডিও পোস্ট করে চলছিল সুবার্থ।

এরপর দুজনের মধ্যে বনিবনা হলে সুবার্থ ১৪ নভেম্বর স্বামীর বাড়িতে ফিরে আসেন। আর এর তিনদিন পরেই চিন্না ও তার ভাই ভেনিকিয়াহ সুবার্থকে হত্যা করে। তারপর তাকে একটি হুইল চেয়ারে বসিয়ে গ্রামের পাশের একটি শশ্মানে নিয়ে পুড়িয়ে ফেলে।

অজ্ঞাত এক ব্যক্তি পুড়ে যাওয়ার অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। মরদেহটির সঙ্গে থাকা গহনা দেখে তাকে চিহ্নিত করে পুলিশ। এরপর তদন্ত শেষে পুলিশ চিন্নাকে গ্রেফতার করে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//