ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো লক্ষ্মীপুরে লকডাউন অবস্থায় অসুস্থ যুবকের মৃত্যু : নমুনা সংগ্রহ
  • রোববার   ১৬ আগস্ট ২০২০ ||

  • ভাদ্র ১ ১৪২৭

  • || ২৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

৭০

পদোন্নতি না হওয়ার পেছনে ভুলটি আপনারই নয় তো?

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০২০  

সফল হতে কার না ইচ্ছা করে! সফলতা অনেক কষ্টের ফসল। তাই বলে চেষ্টা করা যাবে না তা নয়। যদিও সবার চেষ্টা ফল বয়ে আনে না। এক্ষেত্রে নিজেরও যে কিছু ভুল থাকে না, তা কিন্তু নয়।

আবার অনেকেই অনেক যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও জীবনে উন্নতি করতে পারে না। অন্যদিকে কম যোগ্যতা সম্পন্ন মানুষটিও সফল হয়ে যায়। অনেক সময় কর্মস্থলে সুনামের সঙ্গে কাজ করেও পদোন্নতি পান না। অপরদিকে তুলনামূলক কম যোগ্যতা নিয়েও অনেকে নানা কৌশলে দ্রুত উন্নতি লাভ করেন।

তাই পদোন্নতির জন্য শুধু যোগ্যতা থাকলেই হয় না। পদোন্নতির ক্ষেত্রে আরো কিছু বিষয়ও জড়িত থাকে। চলুন জেনে নেয়া যাক চাকরিতে পদোন্নতি না পাওয়ার কারণগুলো কী কী-

> হুট করে রেগে যাওয়া আপনার পদোন্নতির পথে একটি বড় বাধা। কোনো কারণে আপনার মনে রাগের জন্ম হতেই পারে। কিন্তু নিজেকে সংযত রাখতে না পারলে তা পদোন্নতির পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। আর অতিরিক্ত রাগী লোককে এমনিতেও কেউ পছন্দ করে না।

> যদি কর্মস্থলে সহকর্মীদের নিয়ে কথায়-আড্ডায় ব্যস্ত থাকেন তবে অবসরের সময় চলে এলেও পদোন্নতি আপনি পাবেন না। সহকর্মীদের সঙ্গে ভালো যোগাযোগ অবশ্যই রাখতে হবে। তবে সেটা কাজের ক্ষতি করে নয়।

> যোগাযোগ দক্ষতাও পদোন্নতিতে বড় ভূমিকা রাখে। সহকর্মীদের সঙ্গে এবং উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে রুচিশীল স্বাভাবিক যোগাযোগ গড়ে তুলুন। হাসিমুখে কথা বলা, নিজের এবং অন্যের সম্মান বজায় রেখে কথা বলা রুচিশীল আচরণের মধ্যে পরে।

> অফিসে কখনো কোনো সহকর্মীকে নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখা যাবে না, কাউকে নিয়ে গুজব রটানো যাবে না। নিজেকে সবসময় পরচর্চা-পরনিন্দা থেকে দূরে রাখতে হবে। এটা করতে না পারলে পদোন্নতি বঞ্চিত হবেন, সেটাই স্বাভাবিক।

> শুধু কাজে ডুবে থাকলেও পদোন্নতি হয় না। বস খুশি হোক বা না হোক কিছু কিছু সময়ে সত্যের পক্ষ নিতে হবে। তাহলে ম্যানেজমেন্টের চোখে আপনার সততা ও দৃঢ়তা প্রকাশ পাবে। আপনাকে ভরসা করে কোনো দায়িত্ব দিতে তারা আগ্রহী হবেন।

> আমিই শ্রেষ্ঠ- এই মনোভাব ত্যাগ করতে হবে। মনে রাখবেন, আপনার মতো অন্যান্য সহকর্মীরাও কিছু না কিছু যোগ্যতা নিয়ে সেখানে কাজ করতে এসেছেন। নিজেকেই যোগ্যতম ভাবতে থাকলে আপনি অন্যদের ক্রমাগত খাটো করতে থাকবেন, যা কর্মকর্তাদের চোখে আপনার যোগ্যতাকেই খাটো করে তুলবে। ফলে পদোন্নতির পথও বন্ধ হয়ে যাবে।

> আপনি যদি সারাক্ষণই আপনার চাকরিজীবন, অফিস এবং সহকর্মীদের নিয়ে অভিযোগ করতে থাকেন, তবে তা অবশ্যই আপনার পদোন্নতিতে বাধা সৃষ্টি করবে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//