ব্রেকিং:
দেশ-বিদেশ যেখান থেকেই হোক, গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী কোভিড-১৯ টেস্ট: সরকারের পূর্ণ সহযোগিতা পাচ্ছে গণস্বাস্থ্য করোনা সংকট সামলাতে ডিজিটাল ম্যাপ সমৃদ্ধের উদ্যোগ শবেবরাতের মাহাত্ম্যে মানবকল্যাণে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান চীনের কাছে চিকিৎসক-ভেন্টিলেটর চেয়েছে বাংলাদেশ, সহায়তার আশ্বাস চীন থেকেই চালু হয় হারেমে একাধিক রক্ষিতা রাখার প্রথা! ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীকে কীটনাশক খাইয়ে হত্যার চেষ্টা অনলাইনে পরীক্ষা ও ভর্তি বন্ধে ইউজিসি’র আহ্বান করোনা ঠেকাতে স্বেচ্ছায় লকডাউনে তিনগ্রাম স্বাস্থসেবীদের জন্য সিএমপি`র ফ্রি বাস সার্ভিস দেশের জন্য আগামী ৩০ দিন আরো ঝুঁকিপূর্ণ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওষুধের দোকান ছাড়া সন্ধ্যার পর সব বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনায় আর্থিক সহায়তা পাচ্ছে জার্মানরা কমলনগরে সূর্যের হাসি ক্লিনিকটি বন্ধ গত ১০ দিন করোনা সংকট: দুর্নীতির শঙ্কায় বিএনপিকে না বললেন ড. ইউনূস করোনা আতঙ্কে বন্দুক কিনছে মার্কিনিরা ৯ মিনিটের জন্য অন্ধকারে ভারত এসএসসির ফল চলে যাবে অভিভাবকদের মোবাইলে রাসূলকে (সা.) স্বপ্নে দেখার আমল খাবার নিয়ে অসহায় মানুষের সৌরভ গাঙ্গুলি
  • শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৬ ১৪২৬

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪১

৬৬

ব্যাংকগুলোতে সতর্কতা, পালা করে কাজ করার আহবান

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় দেশের ব্যাংকগুলোতে একধরনের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। কর্মকর্তা ছাড়া প্রধান কার্যালয়গুলোতে অন্যদের প্রবেশকে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। প্রধান কার্যালয় থেকে শুরু করে শাখাগুলোতেও নিরাপত্তামূলক নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষাসহ সব ধরনের অনুষ্ঠান।

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে ব্যাংকগুলোতে লেনদেন অর্ধেকে নেমে এসেছে। তবে অনলাইন সেবায় চাপ বেড়েছে। এ জন্য ব্যাংকিং লেনদেনের সময় কমিয়ে আনার দাবি জানিয়েছেন ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা। বর্তমানে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্যাংকিং সেবা দেওয়া হয়।

জানা গেছে, জরুরি পরিস্থিতিতে কীভাবে ব্যাংকিং কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়া যায়, তার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে ব্যাংকগুলো। তারই অংশ হিসেবে ব্যাংকগুলো কর্মীদের দুই ভাগে ভাগ করেছে। একটি দল অফিস করবে, আরেকটি দল ছুটিতে থাকবে অথবা বাসায় থেকে কাজ করবে। সাপ্তাহিক ভিত্তিতে তা পরিবর্তিত হবে। ইতিমধ্যে বেসরকারি খাতের ইস্টার্ণ, ব্যাংক এশিয়া, দি সিটি, ব্র্যাক, এনআরবিসহ কয়েকটি ব্যাংক এ উদ্যোগ নিয়েছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি, আইডিএলসি, লঙ্কাবাংলা একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কাল রোববার থেকে অন্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও একই পথে যাবে বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে এনআরবি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মেহমুদ হোসেন বলেন, ‘আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। আরও অনেক ব্যাংক একইভাবে কর্মীদের নিরাপদ রাখতে ও সেবা চালিয়ে যেতে পরিকল্পনা করেছে।’

এদিকে ব্যাংকগুলোতে নগদ লেনদেন ও চেকের পরিমাণ কমে আসায় ব্যাংকিং কার্যক্রম সীমিত করার দাবি উঠেছে। তবে ব্যাংকের শীর্ষ নির্বাহীরা বলছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা ছাড়া কার্যক্রম সীমিত করার সুযোগ নেই।

জানতে চাইলে সিটি ব্যাংকের এমডি মাসরুর আরেফিন বলেন, ‘আমাদের ব্যাংকে জরুরি প্রয়োজনে যেসব কর্মী প্রয়োজন, শুধু তাঁরাই অফিস করবেন। অন্যরা বাসায় বসে কাজ করবেন অথবা ছুটিতে থাকবেন।’

সামগ্রিক বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত কার্যক্রম সীমিত করে আনার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। পরিস্থিতি বিবেচনা করে রোববার সিদ্ধান্ত হবে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//