ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে শিশু হত্যার দায়ে মা আটক জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ অটোরিক্সা বন্ধে ট্রাফিক পুলিশের প্রচারণা মা ইলিশ রক্ষায় জেলেদের মধ্যে চাল বিতরণ ওসি ইকবাল হোসেনের বিদায় সংবর্ধনা স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েও স্বপদে বহাল শরীর চর্চা শিক্ষক প্রশাসনের কাজে খুশি হয়ে শ্রমিকদের আনন্দ মিছিল সাদা ছড়ি ব্যবহার করি, নিশ্চিন্তে পথ চলি লক্ষ্মীপুরে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত দোয়া দিবস পালিত ডেঙ্গু কেড়ে নিলো ব্যবসায়ীর প্রাণ ২০২৩ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে পারে বাংলাদেশ! সম্রাটের ১০ দিনের রিমান্ড আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের বিশ্বে ৭০ কোটি শিশু পুষ্টিহীনতায় ভুগছে ইরান ও সৌদিকে সরাসরি আলোচনায় বসার প্রস্তাব ইমরান খানের নতুন প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ার আহ্বান ঢাকায় হচ্ছে আরো দুই মেট্রোরেল দুই মাসেও সন্ধান মেলেনি স্বজনদের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার,আটক ৬ চর লরেঞ্জ ইউপি সদস্য নির্বাচনে ইসমাইল হোসেনের জয়

বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

১৫

‘বয়ফ্রেন্ড বাথরুমে আটকে অত্যাচার করত’

প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর ২০১৯  

মুসাফির ছবির ‘ও সাকি সাকি’ গানের জন্য অভিনেত্রী কোয়েনা মিত্রকে বলিউড প্রেমীরা কোনোদিন ভোলেননি। কারণ, সেখানে একজন আইটেম ড্যান্সার হিসেবে দর্শকের মন কেড়ে নিয়েছিলেন কোয়েনা।

এ বছরের বিগ বস ১৩-এর প্রতিযোগীদের মধ্যে রয়েছেন বাঙালি এই নায়িকা। আর শো-এর শুরু থেকেই কোয়েনা বেশ চর্চিত। শুক্রবার রাতে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খোলামেলা কথা বলার পরেই শুরু হয় জোর গুঞ্জন। 

বিগ বসের ঘরে তাদের শোয়ের একটি অংশে কোয়েনাকে তার সঙ্গীদের সঙ্গে গল্প করতে দেখা যায়। ওই সঙ্গীদের একজন কোয়েনার প্রেমজীবন সম্পর্কে প্রশ্ন করে। ব্যক্তিগত জীবনে কোয়েনা কাউকে ডেটিং করছেন কিনা তাও জানতে চাওয়া হয়। 

কোয়েনা মিত্র জানিয়েছেন, আপাতত কারো সঙ্গে ডেটিং করছেন না। তারপরেই তুরস্কে তার প্রাক্তন প্রেমিকের প্রসঙ্গ তোলেন কোয়েনা। প্রেমিকার উপর দখলদারি ফলানো ওই প্রাক্তন সঙ্গীর নাম অবশ্য প্রকাশ করেননি তিনি। 

কোয়েনা মিত্র বলেন, মুম্বাইতে থাকার সময় একবার তার ওই প্রেমিক তাকে ঘরের মধ্যে বাথরুমে তালাবন্ধ করে অত্যাচার করতো। এছাড়া আমি যাতে বাহিরে কাজের জন্য বের হতে না পারি সেজন্য আমাকে আটকে রাখতো।

কোয়েনা মিত্র তার সঙ্গীদের সঙ্গে নিজের জীবনের এই অশান্ত সম্পর্কের কথা শেয়ার করেন এবং বলেন, তার প্রাক্তন প্রেমিক প্রায়শই জোর করত যাতে কোয়েনা তুরস্কে প্রেমিকের বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করে। একবার যখন কোয়েনা তার প্রাক্তন প্রেমিককে জিজ্ঞাসা করেন যে, তারা বিয়ে করে তুরস্কে থাকার পরে তিনি কী করবেন? তখন ওই প্রাক্তন প্রেমিক কোয়েনাকে বলেন, তিনি যাতে তুরস্ক থেকে বের হতে না পারেন সে কারণে পাসপোর্টটি পুড়িয়ে দিবেন। 

কোয়েনা মিত্র বলেন যে, প্রথমে রসিকতা হিসেবে ভাবলেও তিনি এই মন্তব্য শুনে ভয়ই পেয়ে যান। কয়েক বছর পরই তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায় এবং কোয়েনা জানান যে, এই অভিজ্ঞতার পরে অন্ততপক্ষে তিন বছর ধরে কারো সঙ্গে ডেটিং করারও সাহস পাননি তিনি।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//