ব্রেকিং:
চীন থেকেই চালু হয় হারেমে একাধিক রক্ষিতা রাখার প্রথা! ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীকে কীটনাশক খাইয়ে হত্যার চেষ্টা অনলাইনে পরীক্ষা ও ভর্তি বন্ধে ইউজিসি’র আহ্বান করোনা ঠেকাতে স্বেচ্ছায় লকডাউনে তিনগ্রাম স্বাস্থসেবীদের জন্য সিএমপি`র ফ্রি বাস সার্ভিস দেশের জন্য আগামী ৩০ দিন আরো ঝুঁকিপূর্ণ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওষুধের দোকান ছাড়া সন্ধ্যার পর সব বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনায় আর্থিক সহায়তা পাচ্ছে জার্মানরা কমলনগরে সূর্যের হাসি ক্লিনিকটি বন্ধ গত ১০ দিন করোনা সংকট: দুর্নীতির শঙ্কায় বিএনপিকে না বললেন ড. ইউনূস করোনা আতঙ্কে বন্দুক কিনছে মার্কিনিরা ৯ মিনিটের জন্য অন্ধকারে ভারত এসএসসির ফল চলে যাবে অভিভাবকদের মোবাইলে রাসূলকে (সা.) স্বপ্নে দেখার আমল খাবার নিয়ে অসহায় মানুষের সৌরভ গাঙ্গুলি ভূমিকম্পের মাধ্যমে ধ্বংস হয়েছিল ‘পবিত্র নগরী’! লকডাউন আইসোলেশন কোয়ারেন্টাইন : ইসলাম যা বলে ছু‌টি বাড়লো ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে আরও বেশি মানুষ মারা যাবে, বললেন ট্রাম্প দেশে আরো ১৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত, মোট ৮৮
  • বুধবার   ০৮ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪১

১২৪

ভাড়ায় প্রাইভেট কার-মাইক্রোবাস থেকে সাবধান!

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০১৯  

প্রাইভেট কার-মাইক্রোবাস থামিয়ে যাত্রী ডাকছে চালক-রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ অনেক সড়কেই দেখা যায় এমন চিত্র। স্বল্প সময়ে ও কম খরচে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবে এমন সরল বিশ্বাসে অনেকেই চড়ে বসেন ওইসব গাড়িতে। আর তাতেই অনেক ক্ষেত্রে ঘটে যায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা। কারণ রাজধানীতে চালকের ছদ্দবেশে কিছু দুর্বৃত্ত চক্র এভাবে ওঁৎ পেতে আছে।

এরকমই একটি চক্রের ৪ সদস্যকে বুধবার রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা(ডিবি) পুলিশ। তারা হলেন- মো.মরিন, মো. জামাল হোসেন, মো.নাদিম মাহমুদ ওরফে নাদির মিয়া ও মো. সুবেদ রানা। তাদের কাছ থেকে একটি অস্ত্র, এক রাউন্ড গুলি, ২০০পিস ইয়াবা ও একটি প্রাইভেট কার উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে এসব তথ্য জানান,ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেন । 

তিনি জানান, এ চক্রটি রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে প্রাইভেট কার কিংবা মাইক্রোবাস নিয়ে অপেক্ষা করে। স্বল্প ভাড়ায় পৌঁছে দেয়ার নাম করে তারা ভাড়ায় যাত্রী উঠায়। নির্জন স্থানে যাওয়ার পর তারা যাত্রীদের ভয় দেখিয়ে টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়। অনেক সময় যাত্রীদের গলায় রশি পেঁচিয়ে ফাঁস দিতেও কুণ্ঠাবোধ করে না তারা। যাত্রীদের শারীরিকভাবে নির্যাতন করে তারা বিকাশ কিংবা এটিএম কার্ড দিয়েও টাকা তুলে নেয়। অনেক সময় তারা এতেও ক্ষ্যান্ত হয় না। কোনো কোনো যাত্রীদেরকে ব্যাপক নির্যাতন করে মোবাইল ফোনে সেই নির্যাতনের শব্দ তাদের স্বজনদের শুনিয়ে টাকা আদায় করে।

রাজধানীর মহাখালি, উত্তরা, খিলক্ষেত, ৩০০ফিট, বিশ্বরোড, বনানী, এয়ারপোর্ট ও পূর্বাচলে চক্রটি সবচেয়ে বেশ সক্রিয় বলে জানান অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন। এদের বিরুদ্ধে রাজধানীর একাধিক থানায় মামলা হয়েছে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
//