ব্রেকিং:
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো
  • শুক্রবার   ২৩ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৮ ১৪২৭

  • || ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

২৮৮

মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২০  

 

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে জ্বর শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া তরুণের মৃতদেহের নমুনা পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়েনি। তবে সংস্পর্শে আসায় তার তিন ভাই বোন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। করোনভাইরাস পরীক্ষায় মৃত তরুণের রিপোর্ট নেগেটিভ হলেও দুই ভাই, এক বোনের পজেটিভ আসে।সোমবার (২৭) এপ্রিল দুপুরে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্যবিভাগরে কর্মকর্তারা উপজেলার চর রমিজ ইউনিয়নের চর আফজাল গ্রামে করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া ওই তরুণের বাড়িতে যান। এসময় কিচিৎসকরা আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসা পরিবারের সদস্যসহ আরও ১০জনের নমুনা সংগ্রহ করনে। তাদের বাড়ি ফের লকডাউন করেন।রোববার (২৬ এপ্রিল) লক্ষ্মীপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে বিআইটিআইডির পরীক্ষার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে জানানো হয়েছে মারা যাওয়া তরুণের শরীরে করোনা নেগেটিভ তার দুই ভাই ও এক বোনের পজেটিভ।এরআগে গত ১৯ এপ্রিল রাতে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ২০ বছর বয়সি তরুণের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে স্বাস্থ্যবিভাগ মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে। একই সময় ভাই বোনসহ পরিবারের আরও ১০জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ওই বাড়িসহ তিনি বাড়ি লকডাউন করা হয়।স্থানীয়রা বলছেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর আট দিন পর নমুনা সংগ্রহের রির্পোট আসে। লকডাউনের চারদিন পর থেকে ওই পরিবার ও আশেপাশের পরিবার লকডাউন ও কোয়ারেন্টিনে নির্দেশনা ভঙ্গ করে এলাকায় স্বাভাবিকভাবে চলা ফেরা করে।রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. কামনাশিস মজুমদার বলেন, করোনা উপসর্গ জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়া নিয়ে তরুণের মৃত্যু হওয়া পর তার মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া পরিবারের সদস্যসহ তার সংস্পর্শে আসা ১০জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তাদের মধ্যে দুই ভাই ও এক বোনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। নতুন করে শনাক্তদের সংস্পর্শে আসা আরও ৯জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে; পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রামে পাঠানো হবে।মারা যাওয়া তরুণের স্বজন ও এলাকার সচেতনমহল মনে করছেন, নমুনা সংগ্রহের ৮দিন পরে পরীক্ষার ফলাফল আসছে। এরই মধ্যে নমুনা নষ্ট হয়েও যেতে পারে। দ্রুত সময়ের মধ্যে পরীক্ষা করা হলে হয়তো মরদেহের রিপোর্টও পজেটিভ আসতো।লক্ষ্মীপুরের সিভিল সার্জন ডা. আবদুল গাফ্ফার বলেন, মারা যাওয়ার নির্ধারিত সময় পার হলে অনেক ক্ষেত্রেই মৃত ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস থাকেনা। হয়তো সে কারণে নমুনার প্রতিবেদন নেগেটিভ।প্রসঙ্গত, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ওই তরুন ঢাকায় চাকরি করতেন। এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে কর্মস্থল থেকে বাড়ি আসেন। জ্বর ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হলে স্থানীয় ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে ডায়রিয়া দেখা দিলে নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুর বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//