ব্রেকিং:
রামগঞ্জে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে স্কুল ছাত্রকে পিটিয়ে জখম রামগঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা, তদন্তে পিবিআই লক্ষ্মীপুরে আইনজীবি সহকারিদের মানববন্ধন যুব সমাজের উদ্যেগে গ্রামের রাস্তায় বাতির ব্যবস্থা। বৈধ সড়কে অবৈধ ভাবে চলছে সড়কের শত্রু দৈত্যাকৃতির দানব গাড়ী লাহারকান্দীতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন কমলনগরে নারী ইউপি মেম্বারের ঘরে অসামাজিক কাজ, আটক-৮ প্রজনন ক্ষমতা কমায় কয়েলের ধোঁয়া! হজ পালন করতে সাইকেল চালিয়ে মক্কায় ১১ বছরের গ্যাস মজুত আছে: সংসদে নসরুল ইসরায়েলের বিরুদ্ধে খুতবা, আল আকসার খতিব বরখাস্ত ফের মার্কিন দূতাবাসের কাছে ৩ দফায় রকেট হামলা চিকিৎসক-ডিগ্রি লাগাতে বিএমডিসির অনুমোদন লাগবে: হাইকোর্ট শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টায় পাঁচ জনের মৃত্যুদণ্ড লক্ষ্মীপুরে আবারও শ্রেষ্ঠ ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া কমলনগরে জোরপূর্বক স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিলেন যুবলীগ নেতা, সরকারি স্কুলে অযত্নে-অবহেলায় বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি লক্ষ্মীপুর হলি গার্লস স্কুলে পিঠা উৎসব ভারতেও ছড়াতে পারে চীনের ভাইরাস

বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

৪৫৯

মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

লক্ষ্মীপুরে মিথ্যা মামলা দিয়ে সাদ্দাম হোসেন (২৬) নামে এক যুবককে হয়রানি করার অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার। বিষয়টি নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মুসল্লীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এসময় মিথ্যা মামলা থেকে সাদ্দাম হোসেনকে মুক্তির দাবি জানান তারা।

১৩ ডিসেম্বর শুক্রবার বাদ জুম্মা লক্ষ্মীপুর সদর উপজলার পূর্ব চররুহিতা গ্রামের ছানা উল্যাহ হাওলাদার জামে মসজিদের মুসল্লীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতির দাবি জানান। ভুক্তভোগী সাদ্দাম ওই গ্রামের মোঃ হানিফ এর ছেলে।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার জানান, চররুহিতা গ্রামের আবুল কালাম আজাদ গং দের সাথে মোঃ হানিফের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছে দীর্ঘদিন যাবত। এনিয়ে গত ৭ অক্টোবর ২০১৮ ইং তারিখে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, সদর-লক্ষ্মীপুরে (মিছ ২০৬/২০১৮) অভিযোগ দায়ের করেন মোঃ হানিফ। ওই মামলায় আবুল কালাম আজাদ, মমিন উল্যাহ ও নাজমা বেগমকে বিবাদী করা হয়। এতে আবুল কালাম আজাদ ক্ষিপ্ত হয়ে তার মেয়ে নাজমাকে দিয়ে পরের মাসে ২৬ নভেম্বর ২০১৮ইং তারিখে লক্ষ্মীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে (৩৯৯/১৮) অভিযোগ দায়ের করেন। ওই মামলায় সাদ্দাম কারাগারে রয়েছে।

গ্রামের ইউপি সদস্য, গ্রামবাসী বেলায়েত হোসেন সহ স্থানীয় মুসল্লীরা জানান, তাদের মধ্যে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছে। এনিয়ে আমরা সালিশী বৈঠক করেছি। এর পরও মিথ্যা মামলা দিয়ে নির্দোষ সাদ্দামকে ফাঁসিয়ে দিয়েছে বলে দাবি করা হয়। এ বিষয়ে নিন্দাও জানান তারা।

মামলার স্বাক্ষী আবদুল করিম ও মোঃ হারুন নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে ঘোষনা দিয়েছেন, সাদ্দাম এমন ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে মর্মে তারা শুনে নাই। এছাড়া ঘটনাস্থলে তারা ছিলো না বলেও (এফিডেভিট নং-৫৬, তাং-০৯ নভেম্বর ২০১৯) ঘোষনা দেন।

গ্রামের মাতাব্বর ইসমাইল হোসেন জানান, সাদ্দাম নির্দোষ, যে ঘটনা দেখিয়ে তারা নারী নির্যাতন মামলা দিয়েছে, আসলে এখানে এই ধরনের কোনো ঘটনাই ঘটেনি। একটি কুচক্রী মহলের ইশারায় মিথ্যা নারী নির্যাতন মামলায় সাদ্দামকে ফাঁসিয়ে দিয়েছে তারা। আমরা এর প্রতিকার চাই।

জানতে চাইলে মামলার বাদী নাজমা আক্তারের বাবা আবুল কালাম আজাম গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছু জানিনা। নাজমা কেনো মামলা করেছে সেটা সে বলতে পারবো না। তবে নাজমা বাড়ীতে না থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//