ব্রেকিং:
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্ব ক্যারমে পঞ্চম হেমায়েত মোল্লা বিয়ের আগে একমাত্র কন্যাকে নিয়ে স্মৃতিচারণ মিথিলার চর মার্টিনে নেতৃত্বে আসতে চান বেলায়েত সকল সমুদ্র বন্দরের সংযোগ নেটওর্য়াক হবে ভোলা-লক্ষ্মীপুর সেতু লক্ষ্মীপুরে গুলিবিদ্ধ দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার লক্ষ্মীপুরে প্রতিবন্ধী দিবসে র‌্যালি ও সভা রামগঞ্জ উপজেলা শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক শামছুল ইসলাম প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ‘নেতিবাচক মানসিকতা’ পরিহার করুন: প্রধানমন্ত্রী যুব গোল্ডকাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন ১৫ ডিসেম্বর থেকে ই-পাসপোর্ট চালু: পররাষ্ট্রমন্ত্রী কৃষিজাত পণ্য রফতানি করতে চাই: কৃষিমন্ত্রী গণতন্ত্র মুক্তি দিবস আজ সন্ধ্যায় সৃজিত-মিথিলার বিয়ে কাঁচা মাছ, মাংস, লতাপাতা খেয়েও স্বাভাবিক আছেন অদ্ভুত এই ব্যক্তি! কাতারে বাংলাদেশি হাফেজদের কৃতিত্বপূর্ণ সাফল্য সোনা কেনার সময় যা খেয়াল রাখা খুব জরুরি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুবার্ষিকী আজ বাংলাদেশের হজ কোটা বাড়াল সৌদি আরব সেরা কে? মুখ খুললেন অনুশকা আওয়ামী লীগের ২১তম কাউন্সিল হবে সাদামাটা

শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৬   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১

১০

মিয়ানমার থেকে এলো ৫৪৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর ২০১৯  

মিয়ানমার থেকে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত রেখেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার আটজন ব্যবসায়ীর কাছে ১১টি ট্রলারে করে ৫৪৮টন পেঁয়াজ কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে এসেছে। তবে খালাসের অপেক্ষায় নাফ নদীতে ভাসমান আরো ছয়টি পেঁয়াজভর্তি ট্রলার রয়েছে।

চলতি বছরের নভেম্বর মাসে ২১ দফায় মিয়ানমার থেকে নৌপথে ১৮ হাজার ৪৯৭ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ স্থলবন্দরের কাস্টমস সুপার আফসার উদ্দিন।

তিনি বলেন, ভারত গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেন। এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর প্রথম মিয়ানমার থেকে প্রথম চালানে ৬৫০টন পেঁয়াজ আসে। এরপর থেকে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে ৩৯ হাজার ৯৯৫ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। এসব পেঁয়াজ খালাস করে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, নাফ নদীতে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজসহ অন্যান্য পণ্য নিয়ে আসা ২৫টি ট্রলার নোঙর করে রয়েছে নাফ নদীতে।এরই মধ্যে তিনটি ট্রলার থেকে পেঁয়াজ খালাস করে শ্রমিকেরা ট্রাকে বোঝাই করছেন। ট্রাকভর্তি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করার জন্য প্রস্ততি নেয়া হলেও পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাকে বন্দর এলাকায় ভিড় দেখা গেছে।

কয়েকজন শ্রমিক বলেন, আগের তুলনায় মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আসা অনেক কমে গেছে। অধিকাংশ আমদানিকারকরা বন্দরে আসছে না। তাদের মধ্যে এক ধরনের ভয়-ভীতি কাজ করছে। এর ফলে পেঁয়াজ আমদানি কমেছে। টেকনাফ স্থলবন্দরে ছোট-বড় পেঁয়াজ বিক্রয় হয়েছে ১২০-১৭০ টাকায়। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ব্যবসায়ীরা এসে পেঁয়াজ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। 

এ প্রসঙ্গে স্থলবন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট টেকনাফ লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন বলেন, স্থলবন্দরের পেঁয়াজের পাশাপাশি অন্যান্য পণ্য থাকলেও আগে পেঁয়াজের ট্রলার খালাস করা হচ্ছে। মঙ্গলবার রাত সাতটা পর্যন্ত ৪৪টি পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরের উদ্দেশ্যে স্থলবন্দর ছেড়ে গেছে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//