ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো লক্ষ্মীপুরে লকডাউন অবস্থায় অসুস্থ যুবকের মৃত্যু : নমুনা সংগ্রহ
  • মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

৭৯৬

রামগঞ্জে ছেলের বিরুদ্ধে শতবর্ষী পিতার মামলা

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে চিকিৎসার কথা বলে পিতার সকল সম্পত্তি লিখে নিয়েছেন ছেলে। সম্পতি নেওয়ার পর গত তিন বছর থেকে দ্বায়িত্বে অবহেলা করায় শতবর্ষী পিতা আবদুল মালেক (১০৫) প্রতিকার চেয়ে আজ সোমবার থানায় অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের সমেষপুর আবদুল সাত্তার বেপারী প্রকাশ বেজ্জার বাড়িতে। অভিযোগ পেয়ে আজ সোমবার সকালে রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন ফলফ্রুট নিয়ে নিজে ঘটনাস্থল গিয়ে ছেলের ঘরে থাকার সুব্যবস্থা করেন।
সূত্রে জানা যায়, শতবর্ষী আবদুল মালেকের তিন ছেলে, তিন মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে সুখের সংসারই ছিল। তিন বছর পূর্বে মেঝ ছেলে সৌদী প্রবাসী শামছুল আলম(৪৫) তার স্ত্রী কহিনুর বেগম ও শালা ইকবাল বাবাকে প্ররোচনা দিয়ে মাঠের ১৩ শতাংশ জমি ছেলের নামে দেওয়ার জন্য রাজি করান। পরে তারা বৃদ্ধকে ২০১৭ সালে রামগঞ্জ সাব রেজিস্টারি অফিসে নিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে মোট ৫৩ শতাংশ সম্পত্তি রেজিস্ট্রি করে নিলে বাকী দুই ছেলের মনে কষ্ট হয়। সম্পতি লিখে নেওয়ার পর ছেলে প্রবাসে চলে গেলে তার স্ত্রী বাবা-মার প্রতি দ্বায়িত্বে অবহেলা শুরু করেন। বাবার চিকিৎসা তো দুরের কথা ঘরে থাকতে দেয়নি পুত্রবধু, খেতে দিতো ভিক্ষুকের মত দরজায় বসিয়ে। জীবনের শেষ লগ্নে বৃদ্ধা অসুস্থ স্ত্রীকে নিয়ে তিন বছর ধরে রাত কাটাতে হচ্ছে কখনও মেয়ের বাড়ি, কখনও আত্মীয়ের বাড়ি। দু’মুঠো ভাতের জন্য তাকে ঘুরতে হচ্ছে পথে পথে। বাবা-মায়ের ওপর ছেলে ও ছেলের বউয়ের বর্বর নির্যাতনের এমন নির্দয় ঘটনা ঘটেছে। বাধ্য হয়ে নিজের ও স্ত্রীর চিকিৎসা, সম্পত্তি রক্ষা এবং ভরণপোষণের জন্য রামগঞ্জ থানায় অভিযোগ করতে হয়েছে।
শতবর্ষী আবদুল মালেকের স্ত্রী বৃদ্ধা শামছুন নাহার জানান, পুত্রবধূ কহিনুর বেগম আমাদের স্বামী স্ত্রী দুইজনের সাথে খারাপ আচরন করে,ঘরে থাকতে দিচ্ছে না , ঘর ময়লা হয়ে যাবে এ কথা বলে, ভিক্ষুকের মত ঘরের দরজায় বসিয়ে খেতে দেয়।
আবদুল মালেক জানান, পুত্রবধূ আমাদেরকে বিল্ডিং থাকতে দেয়না, ঠিকমত খাওয়াও দেয়না । এ ভাবে চললে পরে আমাদের কি হবে, তাই থানায় গিয়ে অভিযোগ দিয়েছি। এ জন্য ছেলের শালা ইকবাল আমাদেরকে সন্ত্রাসী দিয়ে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকী দমকী দেয়।
রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে কিছু খাবার নিয়ে ঘটনাস্থলে নিজে গিয়েছি। ছেলে প্রবাস থাকায় তার স্ত্রী কথা দিয়েছে শশুর-শাশুড়ী প্রতি আর দ্বায়িত্বে অবহেলা করবে না। তাদেরকে ছেলের ঘরে রেখে আসছি । আমরা বিষটি নজরে রাখবো।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুর বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//