ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী কমলনগরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু, এক বাড়ি লকডাউন ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ, কৃষকের মুখে হাসি ভবানীগঞ্জে কর্মহীন পরিবহণ শ্রমিকদের মাঝে সদর এমপি’র ত্রাণ বিতরণ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো লক্ষ্মীপুরে লকডাউন অবস্থায় অসুস্থ যুবকের মৃত্যু : নমুনা সংগ্রহ
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

২৪১

লক্ষ্মীপুরে শ্বাসকষ্টে বৃদ্ধের মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০২০  

লক্ষ্মীপুরে বুধবার রাতে জ্বর, শ্বাসকষ্ট, সর্দি ও ডায়রিয়া নিয়ে ৭০ বছরের এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। এ ঘটনায় একটি বাড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন।

সদর মডেল থানার ওসি এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার বিকেলে সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউপির ৫ নম্বর ওয়ার্ডের এক বৃদ্ধ জ্বর, শ্বাসকষ্ট, সর্দি ও ডায়রিয়া নিয়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে রাতে হাসপাতালে তিনি মারা যান। বৃহস্পতিবার সকালে নিহতের পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এর আগেও তিনি অসুস্থ ছিলেন। তার বাড়িতে দুই জন ইতালিফেরত প্রবাসী ছিলেন। তারা এখনো বাড়িতে অবস্থান করছেন। ওই বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পেয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের সমন্বয়ে পুলিশ ওই বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে। ওই বাড়িতে ১৫টি পরিবার থাকে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত সবগুলো পরিবার লকডাউনে থাকবে।

সদর মডেল থানার ওসি এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে ওই বৃদ্ধ মারা গেছেন। এমন সন্দেহে স্বাস্থ্যবিভাগের সমন্বয়ে তাদের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছ। তারা কেউ বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন না। তাদের বাড়িতে কেউ যেতেও পারবে না। তাদের জরুরি কোনো কিছুর প্রয়োজন হলে তারা পুলিশকে ফোন করবে। পুলিশ তাদেরকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দেবেন।

লক্ষ্মীপুরের সিভিল সার্জন ডা. আবদুল গফ্ফার বলেন, মারা যাওয়া বৃদ্ধের জ্বর, সর্দি ও ডায়রিয়া ছিল। তবে করোনা ছিল কি না তা বলা যাচ্ছে না। খবর পেয়ে ওই বাড়িটি লকডাউন করা হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুর বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর
//