ব্রেকিং:
লক্ষ্মীপুরে ১২ নভেম্বরকে উপকূল দিবসের দাবি দ্বীর্ঘদিনের ভোগান্তি শেষে উন্মোচন হচ্ছে রামগঞ্জ-হাজিগঞ্জ সড়ক গ্রাহকের টাকা ফেরত দিতে পল্লী বিদ্যুৎকে দুদকের নির্দেশ লক্ষ্মীপুরে ৯০০ পিস ইয়ায়বাসহ যুবক আটক সাউথবাংলা এগ্রিকালচারাল এন্ড কমার্স ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন সাজাপ্রাপ্ত ছলিম উদ্দিন পুলিশের জালে আটক সাজাপ্রাপ্ত আসামী পুলিশের জালে আটক রায়পুরে পানিবন্দী ১০ ইউপির মানুষ পেশীর টান? প্রতিকারের সহজ উপায় কম গ্যাস খরচ করে রান্নার সেরা কৌশল! স্ত্রীদের সঙ্গে রাসূল (সা.) এর আচরণ ও বিনোদন ধর্ষকের সাজা কমাতে কোটি টাকার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান তরুণীর দুঃসময়ের নেতাদের নেতৃত্বে আনা হবে: কাদের আজ ভয়াল ১২ নভেম্বর মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে গাম্বিয়ার মামলা যেভাবে ঘটে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ (ভিডিও) ট্রেন দুর্ঘটনায় আহতদের প্রচুর রক্তের প্রয়োজন দুই ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন যুক্তরাজ্যে গাঁজা দিয়ে তৈরি হচ্ছে ওষুধ সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকদের আনতে তিন জাহাজ

বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সেন্টমার্টিন রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

বৈরী আবহাওয়ার কারণে বুধবার সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি অবনতি হলে বৃহস্পতিবার টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হবে।

বুধবার সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পর্যটকরা এসে টেকনাফের দমদমিয়া জেটিঘাটে ভিড় করেন। তবে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় পর্যটক কক্সবাজার চলে যাচ্ছেন। তবে সিগন্যাল বাড়ানো না হলে যথারীতি জাহাজ চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

সেন্টমার্টিন রুটে চলাচলকারী কেয়ারী ক্রুস অ্যান্ড ডাইন এর পরিচালক এসএম আবু নোমান জানান, আমরা এখনো বৃহস্পতিবার জাহাজ বন্ধ রাখার কোনো নির্দেশনা পাইনি। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে বা তিন নম্বর সংকেত জারি করা হলে জাহাজ চলাচল বন্ধের নির্দেশনা আছে।

কক্সবাজার আবহাওয়া অফিস জানায়, আবহাওয়া পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে ৩ নম্বর সর্তক সংকেত জারি করা হবে। বৃহস্পতিবার টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশনা রয়েছে। তবে সংকেত বাড়ানো না হলে টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে সকাল সাড়ের ৯টার দিকে যথারীতি সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকবাহী জাহাজ ছাড়া হবে।

সেন্টমার্টিন পুলিশ জানায়, আটকে পড়া পর্যটকরা দ্বীপের ১০৬টি হোটেল-মোটেল ও কটেজে অবস্থান করছেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পর্যটকরা ফিরতে পারবেন।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আশরাফুল আবছার জানান, বুধবার সকাল থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ করা হয়। তবে আজ এখনো পর্যন্ত জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার কোনো সিদ্বান্ত হয়নি। তবে সতর্ক সংকেত বাড়ানো হবে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও টলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে এবং গভীর সাগরে বিচরণ না করার জন্য বলা হচ্ছে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
এই বিভাগের আরো খবর
//