ব্রেকিং:
মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ ২৬ মার্চ ভারতের সঙ্গে বাইলেটারাল রিলেশন খুব ভালো: কাদের জাতির সর্বোচ্চ গৌরবের দিন সোমবার মুক্তিযুদ্ধে সর্বাত্মক সঙ্গী সোভিয়েত ইউনিয়ন রায়পুরের ডিআইজি মোহাম্মদ আবুল ফয়েজ ভূঁইয়া কে সংবর্ধনা রামগঞ্জে কৃষকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ফাইভ স্টার স্কুল এন্ড কলেজের উদ্বোধন কতটুকু সু-সংঘঠিত ১৫ নং লাহারকান্দী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ? লক্ষ্মীপুর সদরে পৌনে ১৮ হাজার মণ ধান কেনা শুরু ১০টি ভ্যাকসিন যেকোনো বয়সের নারী ও পুরুষের জন্য খুবই জরুরি পাকিস্তান যেতে ক্রিকেটারদের জোর করা হবে না: পাপন উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ, পাঁচ ট্রেন ও ১৫ বাসে আগুন স্টামফোর্ড ছাত্রী রুম্পার মৃত্যু: মেলেনি ধর্ষণের আলামত জিয়া ছিলেন মোস্তাকের সবচেয়ে বিশ্বস্ত: প্রধানমন্ত্রী রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ হবে আজ কোন উপজেলা কখন হানাদার মুক্ত হয় ? লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক টুটুল মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ মাত্র ৪ ঘণ্টার ২৬ প্রার্থী মনোনয়ন সংগ্রহ মাদকের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর সমাবেশ

রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   পৌষ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

২৭০

৪৮ তম শহরে ভ্রমণ কন্যারা

প্রকাশিত: ৩০ জানুয়ারি ২০১৯  

‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ শ্লোগানে স্ক্রুটি চড়ে সারাদেশ বেড়ানো ভ্রমণ কন্যারা মঙ্গলবার দেশের ৪৮তম শহর হিসেবে পাবনায় পৌঁছেছে।

ট্রাভেলটস অব বাংলাদেশ নামের সংগঠনের ব্যানারে ভ্রমণ কন্যারা হচ্ছেন, ডা. সাকিয়া হক, ডা. মানসী সাহা, সিলভী রহমান ও শামসুন নাহার সুমা। এদের সহযোগীতা করছেন পাবনার মেয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাসলিমা খাতুনসহ বেশ কয়েকজন।

তারা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাঝে নারীর ক্ষমতায়ন, বয়ো:সন্ধিকালীন সমস্যা ও সমাধান, নিজেকে সুরক্ষার কৌশল, মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, পর্যটন কেন্দ্রগুলোর ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরে আলোচনা ও ভিডিও প্রদর্শন করছেন। তাদের উপস্থিতি ও নারী জাগরণের বার্তা নিয়ে জেলায় জেলায় ঘুরে বেড়ানোর জন্য শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা শুভেচ্ছা জানান।

ভ্রমণ কন্যারা পাবনা ডিসি মো. জসিম উদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাত করে তাদের আগমণ বার্তা পৌঁছে দেন। ডিসি তাদের উদ্যোগকে অভিনন্দন ও সার্বিক সহযোগিতা করেন। এরপর ভ্রমণ কন্যারা পাবনা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। প্রেস ক্লাবের নেতারা তাদের অভিনন্দন জানান।

ভ্রমণ কন্যা ডা. মানসী সাহা জানান- আমরা দুই জন ঢাকা মেডিকেল কলেজ এবং দুইজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখা পড়া শেষ করেছি। এই কার্যক্রম ২৭ নভেম্বর ২০১৬ সালে শুরু করেছি। আমাদের গ্রুপে এখন সদস্য সংখ্যা ২৭ হাজার। এ পর্যন্ত ৪৮ জেলা ভ্রমণ করলাম। পর্যাক্রমে সব জেলা শেষ করব।

ভ্রমণ কন্যা ডা. সাকিয়া হক বলেন, আমাদের তেমন কোন সমস্যা হয় না। হালকা কিছু সমালোচনা, ইভটিজিং, আর চোখে তাকানো ছাড়া তেমন কোন সমস্যা হয় না। তবে সহযোগীতা ব্যাপকভাবে পাচ্ছি। বাংলাদেশ একটি সুন্দর ও সম্ভাবনাময় দেশ। আমরা আশাবাদী এদেশের নারী জাগরণ ও দ্রুত উন্নয়ন নিয়ে।

সিলভী রহমান বলেন, আমরা বাংলাদেশকে নিয়ে একটি নতুন পর্যটনের স্বপ্ন দেখি। যেখানে মেয়েরা এবং বিদেশিরা স্বাচ্ছন্দে বাংলাদের প্রকৃতি উপভোগ করবে।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
//