ব্রেকিং:
চার বছর পর সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মাওলানা ত্বহার হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইভার অন; বন্ধ মোবাইল ফোন কে এই মাওলানা ত্বহার ২য় স্ত্রী সাবিকুন নাহার? আওয়ামীলীগের ধর্মীয় উন্নয়নকে ব্যাহত করতে ত্বহা ষড়যন্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী
  • বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৭ ১৪২৮

  • || ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

‘আপনারা কষ্ট করে ঘরে থাকুন, আমরা হাসিমুখে আপনার জন্য বাইরে আছি’ :

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ৬ এপ্রিল ২০২০  

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসমাগম এড়াতে বাজার মনিটরিং এবং বেপরোয়া-উৎসুক জনতাকে ঘরে ফেরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরীন চৌধুরী।

এ সময় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তায় লাইসেন্সবিহীন মোটরসাইকেল, অটোরিক্সা, সিএনজি বের করায় এবং অযথা বাইরে ঘোরাঘুরি করায় ৭টি মামলা করা হয়। এতে জারিমানা আদায় করা হয়েছে এক হাজার ৮শ’ টাকা।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার বিষয়টি শনিবার রাতে ইউএনও তাঁর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেজে তুলে ধরেন। এ সময় তিনি রায়পুর বাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারা কষ্ট করে ঘরে থাকুন, আমরা হাসিমুখে আপনার জন্য বাইরে আছি’।

ফেইসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসে তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ/নিয়ন্ত্রণে জনসমাগম এড়ানো, বাজার মনিটরিং করতে আজকের অভিযান ছিল পৌর শহর এবং মধ্য বাজার এলাকায়। বাজার মনিটরিং এর সাথে সাথে বেপরোয়া-উৎসুক জনতাকে ঘরে ফেরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তায় লাইসেন্সবিহীন মোটরসাইকেল, অটোরিক্সা, সিএনজি বের করায় এবং অযথা বাইরে ঘোরাঘুরি করায় ৭টি মামলায় মোট ১৮০০/- জরিমানা করা হয়। জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, ‘‘আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত যেসব রিক্সাওয়ালা পেটের অযুহাতে রাস্তায় বেরিয়েছে মর্মে দাবি জানিয়েছে তাদের নাম-ঠিকানা, মোবাইল নম্বর লিপিবদ্ধ করা হয়, যাচাইয়ান্তে তাদের বাড়িতে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানোর প্রত্যয়ে। তবুও কিছু অসহায় বয়োবৃদ্ধ রিকশা ও ভ্যানওয়ালা, পানওয়ালা, পঙ্গু ব্যক্তির হাতে তুলে দেয়া হয় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাদ্য সহায়তার ছোট্ট একটি থলে।’’

সকলের সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন, ‘‘প্রতিদিনের অভিযানে একটি বিষয় ইদানিং পরিলক্ষিত হচ্ছে ইতোমধ্যে সরকারি, বেসরকারি বা ব্যক্তিগত উদ্যোগে ত্রাণ সহায়তা পেয়েছে এমন ব্যক্তিও ত্রাণ সহায়তার বিষয়টি অবলিলায় অস্বীকার করছে। এর জন্যই একটি সমন্বিত প্রকৃত উপকারভোগীদের তালিকা একান্তই আবশ্যক।’’

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
//