ব্রেকিং:
চার বছর পর সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মাওলানা ত্বহার হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইভার অন; বন্ধ মোবাইল ফোন কে এই মাওলানা ত্বহার ২য় স্ত্রী সাবিকুন নাহার? আওয়ামীলীগের ধর্মীয় উন্নয়নকে ব্যাহত করতে ত্বহা ষড়যন্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

ব্রেকিং নিউজ: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত খালেদা জিয়া

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ৫ এপ্রিল ২০২০  

দীর্ঘ দুই বছর এক মাস পর সরকারের মহানুভবতায় ২৫ মার্চ মুক্তি পেয়ে গুলশানের ভাড়াবাড়ি ফিরোজা উঠেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এক সপ্তাহ সুস্থ থাকলেও নেতা-কর্মীদের অবাধ আনাগোনার ফলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন খালেদা জিয়া। বেগম জিয়ার বোন সেলিমা ইসলামের বরাতে বিএনপি নেত্রীর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বিএনপি নেত্রী করোনায় আক্রান্ত এমন তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে সেলিমা ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে বাংলানিউজ ব্যাংকের এই প্রতিবেদককে বলেন, কারামুক্তি পর থেকে বেগম জিয়া সুস্থই ছিলেন। কিন্তু ৪ এপ্রিল থেকে হঠাৎ করে তিনি প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। এমন ভয়াবহ শ্বাসকষ্টে তাকে আগে কখনো ভুগতে দেখিনি। আমরা ধারণা করছি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাস ভবন ফিরোজায় ফেরার পথে শত শত নেতাকর্মী তাকে ঘিরে রেখেছিলেন, এসময় হয়তো কোনো নেতার মাধ্যমে তার শরীরে করোনাভাইরাস প্রবেশ করতে পারে। যেহেতু করোনাভাইরাস লক্ষণ প্রকাশ পেতে ২ থেকে ১৪ দিন সময় লাগে, সেহেতু খালেদা জিয়া এতো দিন পরে আক্রান্ত হয়েছে বলে আশঙ্কা করছি।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, কারাগার থেকে বের হবার পর প্রথম অবস্থায় বেগম খালেদা জিয়া সুস্থ স্বাভাবিক থাকলেও ৭ দিন পর থেকে তার শরীরে প্রচণ্ড জ্বর আসা শুরু করে। সঙ্গে মাঝে মাঝে তিনি শুষ্ক কাশিও দিতে শুরু করলেন। এ অবস্থায় তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাব এর সভাপতি ডা. হারুন আল রশীদকে জানালে রশীদ সাহেব বাসায় এসে চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃতি জানান। সঙ্গে খালেদা জিয়ার আত্মীয় স্বজন এমনকি তার কারাসঙ্গী ফাতেমাও তার পাশে ভিড়ছেন না।

বিষয়টিকে দুঃখজনক আখ্যায়িত করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, কারাগারে থাকা অবস্থায় এই ফাতেমাই তার দেখভাল করতো। অথচ সামান্য হাঁচি-কাশি দেয়ায় নেত্রীর দেখভাল করছে না ফাতেমা। আমরা আশা করেছিলাম, নেত্রীর এমন সমস্যায় হয়তো পরিবারের স্বজনরা তার দেখভাল করবেন। কিন্তু তা হলো না।

এ বিষয়ে ডা. হারুন আল রশীদ জানান, কারাগারে থাকা অবস্থায় খালেদা জিয়ার ডায়াবেটিসজনিত সমস্যা ছিলো। কিন্তু বর্তমানে যে সমস্যাগুলোর কথা উল্লেখ করে বিএনপি নেতারা আমাদের জানাচ্ছেন, সে সমস্যাগুলো করোনার উপসর্গের সঙ্গে মিলে যায়। এই কারণে আমরা তাকে ১৪ দিন আলাদা থাকতে বলেছি। ডা. জোবায়দাও একই কথা বলেছেন। তার সংস্পর্শে এসে কেউ যাতে ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়, সে জন্য খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যদেরও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ দিন পর যদি খালেদা জিয়া ভাইরাসমুক্ত হন তাহলে আমরা তার চিকিৎসা করবো।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
//