ব্রেকিং:
চার বছর পর সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মাওলানা ত্বহার হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইভার অন; বন্ধ মোবাইল ফোন কে এই মাওলানা ত্বহার ২য় স্ত্রী সাবিকুন নাহার? আওয়ামীলীগের ধর্মীয় উন্নয়নকে ব্যাহত করতে ত্বহা ষড়যন্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে প্রবাসীর মৃত্যু! লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরে করোনা রোগী ৩৭ জন : নতুন করে শিশুসহ আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের মারা যাওয়া তরুণের করোনা নেগেটিভ, তিন ভাই বোনের পজেটিভ লক্ষ্মীপুরে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুরে ত্রাণের সাথে ঘরও পেল লুজি মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ বিভিন্ন থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের ভিডিও কনফারেন্স লক্ষ্মীপুরে আরো ৩ জনের করোনা পজেটিভ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? লক্ষ্মীপুরে ধান কেটে কৃষকের ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ লক্ষ্মীপুরে ২০০০ পরিবার পেল উপহার সামগ্রী
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

করোনা সংকটে জনগণের পাশে নেই বেগম জিয়া, সমালোচনা তুঙ্গে

আলোকিত লক্ষ্মীপুর

প্রকাশিত: ১২ এপ্রিল ২০২০  

বেগম খালেদা জিয়া। বিএনপির চেয়ারপারসন। নিজেকে তিনবারের প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন। স্বামী জিয়াউর রহমান একটি ভাঙা সুটকেস রেখে গেলেও ক্ষমতা ও দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। কথিত আছে, হাজার হাজার কোটি টাকা মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে পাচার করে বিনিয়োগ করেছেন তিনি। নিজেকে জনগণের নেত্রী দাবি করলেও করোনা সংকটে জনগণের পাশে দেখা যাচ্ছে না বিএনপি নেত্রীকে।

দেশের সংকটে বিএনপি নেত্রীর নীরবতা ও ত্রাণ কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকা নিয়ে নানা মহলে চলছে সমালোচনা। জনগণের নেত্রী দাবি করলেও বেগম জিয়া দেশ ও দশের সংকটে নিজেকে লুকিয়ে রেখেছেন। হাজার কোটি টাকার সম্পদের কিছু অংশ জনগণের মাঝে বিলিয়ে দিয়ে তিনি নিজের দুর্নীতির দুর্নাম ঘোচাতে পারতেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

কিন্তু সম্পদের মোহে বেগম জিয়া অন্ধ হয়ে দেশ ও জনগণের কথা ভুলে গেছেন। তাই দেশের মানুষের সংকটেও তিনি নিশ্চুপ রয়েছেন। তার এই নীরবতা এবং বিপদের জনগণের পাশে না থাকাটা তার রাজনৈতিক ইমেজকে আরো বেশি প্রশ্নের মুখে ফেলবে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

দেশের সংকটে বেগম জিয়ার নীরবতা ও ত্রাণকার্যে অনীহার বিষয়ে জানতে চাইলে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বিএনপি ছেড়ে অন্যদলে যোগদানকারী এক নেতা বলেন, করোনা সংকটে বেগম জিয়া কিন্তু জনগণের পাশে দাঁড়াতে পারতেন। তার যে পরিমাণ সম্পদ রয়েছে তার কিছু অংশ যদি তিনি এই সংকটে ব্যয় করতেন তাহলে দেশের অন্তত কয়েক হাজার মানুষ খেতে পারত। যদিও সরকার তার দিকে চেয়ে নেই। সরকার অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছে, তাদের সহায়তা করছে। একই কাজ কিন্তু বিএনপি নেত্রীও করতে পারতেন। কিন্তু সম্পদের মায়ায় পড়ে তিনি দান করা ভুলে গেছেন। বিষয়টি দুঃখজনক।

এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক আরো বলেন, করোনা সংকটে বেগম জিয়াকে পাশে চেয়েছিল জনগণ। কিন্তু তিনি জনগণকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইন নিয়ে ব্যস্ত। তার এমন স্বার্থপর আচরণ ভবিষ্যতে তাকে আরো নানা প্রশ্নের মুখে ফেলবে। জনগণের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলে এবং সম্পদ বিলিয়ে দিলে তার পাপ কিছুটা হলেও কমতো। কিন্তু সেই বিষয়ে কোন চিন্তা নেই বেগম জিয়া। সত্যি বলতে বিএনপি কখনই জনগণের জন্য রাজনীতি করেনি।

আলোকিত লক্ষ্মীপুর
আলোকিত লক্ষ্মীপুর
//